বর্ষা বিলাস

বর্ষা বিলাস

:: সালাহ উদ্দিন মাহমুদ :: বর্ষাকে অনেক ভালোবাসি তুমি আর আমি। বর্ষা এলেই প্রেমাতুর হয়ে উঠি দুজন। তোমার প্রেমকাতর মনের হাহাকার পৌঁছে যায় আমার মনেও। বিগত বর্ষার খণ্ড খণ্ড স্মৃতি তোমাকে-আমাকে তাড়া করে এখনো। তোমার-আমার বর্ষাপ্রীতি আজও মহাকবি কালিদাসের মেঘদূতকে ... Read More »

মায়ের শূন্যতা

মায়ের শূন্যতা

:: আঞ্জুমান জুলিয়া :: মাকে সব সময় খুব বেশি মনে পড়ে। যাই করি না কেন, যতো ব্যস্ত থাকি না কেন মাকে কখনো চোখের সামনে থেকে আড়াল করতে পারি না। আমার মা ছিলেন খুব সরল মনের মানুষ ও পরোপকারী। পরিবারের, আত্মীয়-স্বজন, ... Read More »

বিধাতার অকৃপণ দান নিয়েছিলাম, চুরি করিনি

বিধাতার অকৃপণ দান নিয়েছিলাম, চুরি করিনি

:: ওয়াজেদ আলী বাদশা :: আমাদের গ্রাম থেকে ৩ কিলোমিটারের দুরত্বে যে গ্রাম, তার নাম ত্রিবেণী। ব্রাহ্মণ থেকে শুরু করে ধোপা, নাপিত এমনকি বারবণিতাদের আবাস ছিল এই গ্রামে। ছিল বলছি এজন্যে যে, এখন হিন্দু সম্প্রদায়ের বসবাস খুবই কম। কেন কম ... Read More »

জবানবন্দি

জবানবন্দি

:: আসিফ শুভ্র :: আমার আড়াই বছরের ছোট্ট মেয়েটা বারান্দার গাছের পাতা ছিঁড়ে ছিঁড়ে তার খেলনার হাঁড়িপাতিলে রান্না করছে একটু পর ভ্রু কুঁচকে আমার কাছে দৌড়ে চলে এসে জিজ্ঞেস করলো, আব্বু তা (চা) কাবা (খাবা)? চা খাবার বদ অভ্যেসটা আমার ... Read More »

হৃদয়ের গভীরে তীব্র মমতা

হৃদয়ের গভীরে তীব্র মমতা

বিশ বছর! সময়টা একেবারে কম না। হলি ফ্যামিলি’র বারান্দায় বসে আছি। একা। জ্যোৎস্না রাত। আকাশে মস্ত এক চাঁদ বড় বড় চোখে তাকিয়ে আছে। ডেটলের তীব্র গন্ধ বারে বারে মনে করিয়ে দিচ্ছে-আমি হাসপাতালে আছি। রাত বেশ গভীর। চারিদিকে সুনসান নীরবতা। কুকুরের ... Read More »

আমার পৃথিবী

আমার পৃথিবী

:: রিপনচন্দ্র মল্লিক :: আমার মা প্রতিদিন সূর্যোদয়ের সাথে সাথে ঘুম থেকে ওঠেন। আমি তখন প্রতিদিনের মত ঘুমিয়ে থাকি। মা আমাদের ঘরের পাশে তার নিজ হাতে লাগানো টগর ফুলগাছ থেকে পূজা-অর্চনা করার জন্য ফুল তোলেন। আর যখন আমাদের ঘরে নিত্যদিনের ... Read More »

বংশ পরম্পরা

বংশ পরম্পরা

:: জহিরুল ইসলাম খান :: কয়েকদিন ধরে দুটি বিড়ালের বাচ্চা ঘরের মধ্যে আসে। একটি কুচকুচে কালো। অন্যটি সাদা, তবে দুএক জায়গায় কালো দাগও আছে মনে হল। মাঝে মধ্যে মা বিড়ালটিকেও দেখি। আমাকে দেখামাত্রই দৌড়ে ঘর ছাড়ে বিড়ালগুলো। স্ত্রী, এক ছেলে ... Read More »

টুনটুনি আমার প্রথম পাপ, হয়তো বা শেষ প্রায়শ্চিত্ত

টুনটুনি আমার প্রথম পাপ, হয়তো বা শেষ প্রায়শ্চিত্ত

আমিরুজ্জামান আমির বাবু: আমি তখন দ্বিতীয় বা তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ি। মাটির গুলি বানিয়ে রোদে শুকিয়ে চুলার আগুনে পুড়ে বানাতাম গুলতিবাসের পাখি শিকারের অস্ত্র। ওই সময় স্কুল বন্ধ থাকতো রবিবার। একদিন সকাল ৯টা থেকে ১০টার মধ্যে গুলতিবাস দিয়ে মেরে ফেললাম একটি টুনটুনি ... Read More »

সব দিন যদি বিজয় দিবস হতো!

সব দিন যদি বিজয় দিবস হতো!

তাশরিক সঞ্চয়: সেই রাতে ঘুম হতো না। কখন ভোর হবে! কখন হাড় কাঁপানো শীতে ঘর থেকে বেরুবো। বার বার হাতে নেড়ে দেখতাম পরিপাটি করে গুছিয়ে রাখা জামা-জুতো আর সকালের সাজ। ঠিক যেন নির্মলেন্দুর কবিতায় … অমর কবিতা শুনতে অধীর আগ্রহে ... Read More »

আপনজনের লাশ দেখে চোখে একটুও পানি আসে নি!

আপনজনের লাশ দেখে চোখে একটুও পানি আসে নি!

যোগেশ চন্দ্র ঘোষ: ১৯৭১ সালে আমার বয়স ৩৫ বছর। তখন আমি পোষ্টমাষ্টারের চাকরি করতাম। দেশে যুদ্ধ লেগেছে সে কথা জানতাম। পাকবাহিনী হিন্দুদের প্রতি বেশি অত্যাচার করত। আমাদের এলাকার সবাই ছিল হিন্দুবসতি। আমরা আতঙ্কিত ছিলাম যে, পাক বাহিনী আমাদের আক্রমণ করতে ... Read More »

Scroll To Top